আবুল খায়ের গ্রুপ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ | Abul Khair Group Job Circular 2022

আবুল খায়ের গ্রুপ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি


আবুল খায়ের গ্রুপ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ | Abul Khair Group Job Circular 2022

 আবুল খায়ের গ্রুপ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ প্রকাশিত হয়েছে। এই কোম্পানিটি ঢাকায় অবস্থিত একটি বাংলাদেশী বৈচিত্র্যময় সমষ্টি আবুল কাশেম চেয়ারপারসন এবং আবুল হাসেম এই গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। আবু সৈয়দ চৌধুরী উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং শাহ শফিকুল ইসলাম গ্রুপ পরিচালক। চারজনই আবুল খায়েরের ছেলে। কোম্পানি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেখে আবেদন করুন।

আবুল খায়ের গ্রুপ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ | abul khair group job circular

আবুল খায়ের গ্রুপ জব সার্কুলার 2022 পদ দ্বারা বিতরণ করা হয়েছে। এটি একটি আকর্ষণীয় অবস্থান রাউন্ড. আবুল খায়ের গুচ্ছ পজিশন রাউন্ডঅবাউট 2022 সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য পেতে, আপনি আমাদের সাইটটি দেখতে পারেন যা onlineinfobd.com। আবুল খায়ের গুচ্ছ বাংলাদেশের অন্যতম বড় সংগঠন। আমরা বলতে পারি যে কেউ এই খোলা দরজা মেনে নিতে পারে। আবুল খায়ের গুচ্ছ অর্থনৈতিক মঙ্গল এবং স্ব-স্বায়ত্তশাসনের অনুভূতি সজ্জিত করার প্রয়াস তার চিত্র চি`ত্রের সাথে। আবুল খায়ের একদল তরুণ, উদ্যমী, সক্রিয় এবং ন্যায্য ব্যক্তিদের সন্ধান করছে।

চাকরির ধরনবেসরকারি চাকরি
জেলাসকল জেলা
কোম্পানিআবুল খায়ের গ্রুপ
শূণ্যপদট্রেড মার্কেটিং রিপ্রেজেন্টেটিভ
পদের সংখ্যাঅসংখ্য
বয়সকমপক্ষে ১৮ বছর
শিক্ষাগত যোগ্যতাউচ্চ মাধ্যমিক পাশ
সাক্ষাতকারের শেষ তারিখ১২-১৯ মে, ২০২২
উপস্থিতির ঠিকানাবিজ্ঞপ্তিতে দেখুন

আবুল খায়ের গ্রুপের চাকরির সকল তথ্য


আবুল খায়ের গ্রুপ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ | abul khair group job circular আবুল খায়ের গ্রুপ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২ | abul khair group job circular

 Abul Khair Group Job Circular 2022

আবুল খায়ের গ্রুপের মালিকানাধীন শাহ সিমেন্টের ২০১২ সালে বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি বাজারের শেয়ার ছিল। ডিসেম্বর ২০১৯ সালে, শাহ সিমেন্ট ইন্ডাস্ট্রিজ গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস অনুযায়ী বিশ্বের বৃহত্তম লম্বালম্বি রোলার সিমেন্ট মিল স্থাপন করেছে। রোলারটি ডেনিশ সংস্থা এফএলএসমিথ তৈরি করেছিলেন। পরিবেশ অধিদপ্তর সীতাকুণ্ড উপজেলার মাদামবিবির হাটে অবস্থিত আবুল খায়ের স্টিল এবং পাওয়ার লিমিটেডকে পরিবেশ আইন লঙ্ঘন করেছে। উদ্ভিদটি ২৫ মেগাওয়াট উৎপাদন করার অনুমতি পেয়েছিল তবে এটি অবৈধভাবে ৭৫ মেগাওয়াট উৎপাদন করছিল।

আবুল খায়েরের উত্তরসূরিরা পরে গড়ে তুলে স্টিল মিল, সিমেন্ট কারখানা, চা বাগান, ডেইরি প্রডাক্টসহ অনেক প্রতিষ্ঠান। ১৯৯৩ সালে আবুল খায়ের গ্রুপ স্টারশিপ কনডেন্সড মিল্ক দিয়ে দুগ্ধ খাতে নাম লেখায়। এরপর ১৯৯৬ সালে যোগ হয় স্টারশিপ ফুল ক্রিম মিল্ক পাউডার। ১৯৯৭ সালে আসে মার্কস ফুল ক্রিম মিল্ক পাউডার এবং সিলন চা নিয়ে বাজারে আসে ২০০৪ সালে। দেশের সিমেন্ট খাতের বেশির ভাগ চাহিদা পূরণে সক্ষম আবুল খায়েরের প্রতিষ্ঠান শাহ সিমেন্ট। ১৯৯৩ সালে আবুল খায়ের গরু মার্কা ঢেউটিন দিয়ে ইস্পাত শিল্পে নাম লেখায়। অতিসম্প্রতি তারা বড় ধরনের বিনিয়োগ করেছে একেএস টিএমটি ৫০০ডব্লি¬উ ইস্পাতের রড উৎপাদনে।

আবুল খায়ের গ্রুপ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

ভারী শিল্পে রয়েছে আবুল খায়েরের আধিপত্য। দেশের সিমেন্ট খাতের বেশির ভাগ চাহিদা পূরণে সক্ষম আবুল খায়েরের প্রতিষ্ঠান শাহ সিমেন্ট। প্রতিষ্ঠানটির বার্ষিক উৎপাদনক্ষমতা ৫০ লাখ টন। দেশে বিদেশী কয়েকটি সিমেন্ট কোম্পানি থাকলেও তাদের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ব্যবসা করছে শাহ সিমেন্ট।

১৯৯৩ সালে আবুল খায়ের গরু মার্কা ঢেউটিন দিয়ে ইস্পাত শিল্পে নাম লেখায়। এর পর প্রতিষ্ঠানটি করুগেটেড কালার কোটেড ঢেউটিন উৎপাদন শুরু করে, যা বর্তমানে ২০টির বেশি দেশে রফতানি হচ্ছে। অতিসম্প্রতি[কখন?] তারা বড় ধরনের বিনিয়োগ করেছে একেএস টিএমটি ৫০০ডব্লিউ ইস্পাতের রড উৎপাদনে।

১৯৯৩ সালে আবুল খায়ের গ্রুপ স্টারশিপ কনডেন্সড মিল্ক দিয়ে দুগ্ধ খাতে নাম লেখায়। এর পর ১৯৯৬ সালে যোগ হয় স্টারশিপ ফুল ক্রিম মিল্ক পাউডার। ১৯৯৭ সালে আসে মার্কস ফুল ক্রিম মিল্ক পাউডার। আর সিলন চা নিয়ে বাজারে আসে ২০০৪ সালে।

Post a Comment

0 Comments